শেরপুরে ১৪ টি ইউনিয়নে স্বাস্থ্যসেবা ও ঈদ উপহার বিতরণ করলেন - ডা.অমি

সম্পাদক-প্রকাশকঃ মারুফুর রহমান ফকির
বৃহস্পতি, 30.07.2020 - 04:56 AM
Share icon
Image

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ মহামারী  করোনা ভাইরাসের প্রকোপ এবং দীর্ঘস্থায়ী বন্যা পরিস্থিতিতে গ্রামীন হতদরিদ্র জনগোষ্ঠীর চিকিৎসা সেবা অনেকটা দুর্বল হয়ে পড়েছে। এমন দুর্যোগকালীন সময়ে নিজেকে নিয়ে চিন্তা না করে কখনো নৌকা বা কলাগাছের ভুড়ায় চড়ে ছুটছেন গর্ভবতী মা ও শিশুদের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিচ্ছেন চিকিৎসা সেবা। শেরপুরের ১৪ টি ইউনিয়নে স্বাস্থ্যসেবা ও ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করলেন ডা.শারমিন রহমান অমি।

এসব সেবার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় ঔষধসামগ্রী এবং বেতনের টাকা থেকে বড় একটা অংশ মা ও শিশুদের জন্য ঈদ উপহার হিসেবে প্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী দিয়ে যাচ্ছেন হুইপ কন্যা ও উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের মেডিক্যাল অফিসার (এমসি-এইচ এফপি) ডা. শারমিন রহমান অমি।

শনিবার দিনব্যাপী শেরপুর সদর উপজেলার পাকুড়িয়া ইউনিয়নের গর্ভবতী মা ও শিশুদের চিকিৎসা সেবার মধ্য দিয়ে ১৪ ইউনিয়নের স্বাস্থ্য সেবার কাজ সমাপ্ত করলেও করোনা নামক মহামারী যতদিন থাকবে ততদিন এ ধরনের স্বাস্থ্যসেবা দিয়ে যাবেন বলে তিনি জানান।

ব্যতিক্রমী উদ্যোগ হিসেবে ইতিমধ্যে তিনি দেশব্যাপী আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন। যা বিগত সময়কালে এ ধরনের মহতী উদ্যোগ অনেকটাই কম ছিলো। ইতিমধ্যে শেরপুর সহ দেশব্যাপী বিশাল সুনাম কুড়িয়েছে হুইপ কন্যা ডা. শারমিন রহমান অমি।

এবিষয়ে হুইপ কন্যা ডা. শারমিন রহমান অমি উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের মেডিক্যাল অফিসার (এমসি-এইচ এফপি)’র দায়ীত্ব পাওয়ার পর শুধু অফিসিয়াল ডিউটি নিয়ে বসে থাকিনি। এর বাইরেও সরকারী বিভিন্ন বন্ধ যেমন, ১৬ ই ডিসেম্বরেও আমি অসহায় দরিদ্র মা ও শিশুদের জন্য সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে গিয়ে চিকিৎসা সেবা দিয়েছি।

বর্তমান করোনা মহামারীতেও তা অব্যাহত আছে। শুধু তাই নয় দুস্থ গর্ভবতী মা পুষ্টি হীনতায় ভূগা শিশুদের জন্য আমার ব্যাক্তিগত অর্থ দিয়ে ঈদ সামগ্রী দিয়েছি। যার মধ্যে ছিল সেমাই, আটা, চিনি ও দুধ। এছাড়া আমার দেওয়া ব্যবস্থাপত্রের মধ্যে ছিল, এমক্সোসিলিন, পেরাসিটামল (ফাস্ট) সিরাপ, হিসটাসিন, ভিটামিন বি কমপ্লেক্স, প্যানটোপ্রাজল, আয়রনসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় ঔষধ সামগ্রী।

ডা.অমি আরও জানান,অদূর ভবিষ্যতে যে কোন দূর্যোগকালীন সময়ে আমার এ ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

এ সময় অন্যান্যদের মাঝে, উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসার ডা. মোহাম্মদ আমবাজ আলী, পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক এম কে জামান, তোফাজ্জল হোসেন, প্রেস ক্লাব সভাপতি শরিফুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক মানিক দত্ত, পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা রানী বেগম, পরিবার কল্যাণ সহকারী রিনা দত্ত প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

Share icon