বিশিষ্ট শিল্পপতি আলহাজ্ব ইদ্রিস মিয়া আর নেই

সম্পাদক-প্রকাশকঃ মারুফুর রহমান ফকির
মঙ্গল, 13.04.2021 - 02:51 PM
Share icon
Image

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ শেরপুরের বিশিষ্ট শিল্পপতি দানবীর ও শিক্ষানুরাগী ইদ্রিস গ্রুপ অব কোম্পানীর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ইদ্রিস মিয়া আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্নাইলাইহি রাজিউন)।

তিনি ১২ এপ্রিল সোমবার রাত আনামানিক সোয়া নয়টায় রাজধানীর ডাঃ আনোয়ার খান মডার্ণ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। আলহাজ্ব ইদ্রিস মিয়া দীর্ঘদিন ধরে কিডনী, ডায়াবেটিস, উচ্চরক্তচাপসহ নানা রোগে ভুগছিলেন। 

তিনি সিঙ্গাপুর রানী এলিযাবেথ হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের চিকিৎসাধীন ছিলেন। আলহাজ্ব ইদ্রিস মিয়া শেরপুরের তার কোম্পানীর প্রধান কার্যালয়সহ বিভিন্ন অফিস পরিদর্শন শেষে শারীরিক অসুস্থতা বেড়ে গেলে ৯ এপ্রিল তিনি ঢাকায় চলে যান।

পরিস্থিতির অবনতি হলে তাকে আজ ১২ এপ্রিল সকালে ঢাকা ডাঃ আনোয়ার খান মডার্ণ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সোয়া নয়টার দিকে তার মৃত্যু হয়। 

মৃত্যুকালে তিনি একমাত্র পুত্র সন্তান, দুই স্ত্রী, আট মেয়েসহ অনেক গুণগ্রাহী ও বন্ধু বান্ধব রেখে যান।
আলহাজ্ব ইদ্রিস মিয়ার একমাত্র ছেলে তরুণ শিল্পপতি গুলজার মোহাম্মদ ইয়াহ্ ইয়া জিহান তার বাবার জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।তার মৃত্যুতে ইদ্রিস গ্রুপ অব কোম্পানীসহ শেরপুরে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

এদিকে আলহাজ্ব ইদ্রিস মিয়ার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন জাতীয় সংসদের হুইপ বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আতিউর রহমান আতিক, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডাভোকেট চন্দন কুমার পাল, জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক এমপি মাহমুদুল হক রুবেল, শেরপুর পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন, শেরপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শরিফুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মোঃ মেরাজ উদ্দিন, শেরপুর জেলা আইনজীবী সমিতি ও প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এডভোকেট রফিকুল ইসলাম আধারসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

ঢাকায় তার বাসভবন গুলশান নিকেতনে একটি জানাযা শেষে রাতেই তার লাশ ঢাকা থেকে শেরপুরে নিয়ে আসা হয়।

আজ দুপরে ১ম নামাজে জানাযা পৌরপার্কে ও বিকেলে ইদ্রিসিয়া কামিল মাদ্রাসা মাঠে ২য় নামাজে জানাযা শেষে তাকে তার প্র‍তিষ্ঠিত বাবর আলী জামে মসজিদের পাশে দাফন করা হবে বলে পারিবারিক সূত্রে জানাগেছে।

দানবীর ও শিক্ষানুরাগী আলহাজ্ব ইদ্রিস মিয়া শেরপুরের শেখহাটিতে ইদ্রিসিয়া কামিল মাদ্রাসা, শেখহাটি কামারিয়ায় জিহান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আলহাজ্ব বাবর আলী উচ্চ বিদ্যালয়, নারায়ণপুরে আলহাজ্ব বাবর আলী জামে মসজিদ, রেহানা ইদ্রিস মডেল একাডেমী প্রতিষ্ঠাসহ বহু স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, মসজিদসহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠার জন্য অনেক আর্থিক সহায়তা করে এসেছিলেন।

তার প্রতিষ্ঠিত শিল্প ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হাজার হাজার শ্রমিক-কর্মচারী জীবীকা নির্বাহ করে যাচ্ছেন। এতে তিনি শেরপুর, জামালপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বেকার সমস্যা সমাধানে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে আসছিলেন।

Share icon